৩০শে নভেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

নিউজ ডেস্ক

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরো ৯ জন মৃত্যুবরণ সহ নতুন করে আক্রান্ত ৩০৬ জন

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মহামারি করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে আরো ৯ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। একই সময়ে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরো ৩০৬ জন। এ নিয়ে করোনাভাইরাসে মৃত্যু ৮৪ ও আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ১৪৪ জনে।

শনিবার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে স্বাস্থ্য বুলেটিনে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বুলেটিনে বলা, করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় দুই হাজার ২৪৪টি নমুনা সংগ্রহ করা হয় এবং দুই হাজার ১৯০টি পরীক্ষা হয়েছে। এতে আরো ৩০৬ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। ফলে দেশে মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা হয়েছে দুই হাজার ১৪৪। আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে মারা গেছেন আরো নয়জন। এতে মৃতের সংখ্যা হয়েছে ৮৪। এছাড়া সুস্থ হয়েছেন আরো ৮ জন। ফলে মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬৬ জনে।

গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর চীনের উহান শহরে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। দেশে প্রথম কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হন ৮ মার্চ এবং এ রোগে আক্রান্ত প্রথম রোগীর মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ।

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on print

মন্তব্য করুন

‘নির্বাচন বাধাগ্রস্তকারী বিএনপির ওপর নিষেধাজ্ঞা আসা উচিত’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি প্রকাশ্যে নির্বাচনের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে, বাধা দেওয়ার চেষ্টা করছে। এসব বিষয়ে এখনও নিশ্চুপ ইউরোপ-যুক্তরাষ্ট্র। তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আসা উচিত।

 

আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে বুধবার সকালে এক বিফ্রিংয়ে তিনি এ কথা বলেন।

 

ওবায়দুল কাদের বলেন, আজকে বাংলাদেশের এক দল ও তাদের দোসররা হরতাল, অবরোধ ডাকছে। পুলিশের ওপর হামলা করেছে, তারা আমাদের সংবিধানকে চ্যালেঞ্জ করছে, গণতন্ত্রকে চ্যালেঞ্জ করছে। এটাই কী আন্দোলন?

 

এসব করে বিএনপি নির্বাচনকে বাধাগ্রস্ত করতে চাচ্ছে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, তারা নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে চায়।

 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান প্রমুখ।

আলিয়ার ‘আপত্তিকর ভিডিও’ ফাঁস, যা বললেন রাশমিকা

বলিউডে ডিপফেক ভিডিও আতঙ্ক! একের পর এক অভিনেত্রীর ভুয়া ‘অশ্লীল ভিডিও’ সামনে আসছে। প্রথমে রাশমিকা মান্দানা, তার পর কাজল। এর পর ডিপফেক ভিডিওর শিকার হয়েছেন আলিয়া ভাট।

 

প্রথম থেকেই এ ধরনের প্রযুক্তির বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছেন তামিল অভিনেত্রী রাশমিকা। নিজের ডিপফেক ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর স্পষ্টই জানিয়েছিলেন তার বিরক্তি ও হতাশার কথা। তাকে সমর্থন করেছিলেন অমিতাভ বচ্চনের মতো তারকারা। আর এবার আলিয়ার কুরুচিকর ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর রাশমিকা যেন ক্ষোভে ফেটে পড়লেন।

 

সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে অভিনেত্রী জানালেন, ‘এ রকম ঘটনা ঘটলে একেবারেই চুপ থাকা যাবে না।’

 

আগামী ১ ডিসেম্বর মুক্তি পাচ্ছে রাশমিকার নতুন ছবি ‘অ্য়ানিমেল’। এ উপলক্ষ্যে সংবাদ সম্মেলনে অংশ নিয়েছিলেন তিনি। পাশে ছিলেন রণবীর কাপুরও। সেখানেই এক প্রশ্নে ডিপফেকের বিরুদ্ধে গর্জে ওঠেন অভিনেত্রী। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

 

রাশমিকা বলেন, ‘যখন আমি ডিপফেক ভিডিওটি দেখি, খুব ভয় পেয়েছিলাম। নিজেকে অসহায় মনে হয়েছিল। তবে ধীরে ধীরে দেখি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সবাই আমার পাশে এসে দাঁড়ালেন। বিশেষ করে অমিতজির (অমিত শাহ) সমর্থন আমাকে সাহজ জুগিয়েছিল। তাই আমার মনে হয় যার সঙ্গেই এসব ঘটুক না কেন, চুপ করে থাকবেন না। ভয় পাবেন না। প্রতিবাদ করুন।’

 

প্রসঙ্গত, নায়িকাদের ডিপফেক ভিডিও ঘিরে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। ডিপফেক এআই প্রযুক্তি দিয়ে তৈরি এমন ভিডিও নতুন করে সাইবার ক্রাইমের প্রতি মানুষের ভয় বাড়িয়ে দিয়েছে। একের পর এক অভিনেত্রী এই বিকৃত প্রযুক্তির শিকার হচ্ছেন।

তবে কী রিয়ালের কোচ হতে যাচ্ছেন স্কালোনি!

আর্জেন্টিনা ফুটবলের নতুন ইতিহাস লেখা কোচ লিওনেল স্কালোনি। মেসিদের দায়িত্ব নেওয়ার পর ভালো সময়ই যাচ্ছিল তার। তার অধীনে আলবিসেলেস্তেরা একের পর এক ফাইনাল জিতে দীর্ঘ দিনের শিরোপা জয়ের খরা কাটাচ্ছিল। সব কিছু ঠিক ঠাকই চলছিল তবে হুট করে গেল সপ্তাহে তিনি ইঙ্গিত দিয়ে বসলেন তিনি ছাড়তে যাচ্ছেন এই দায়িত্ব।

 

তবে কেন, তা জানায়নি। এবার সামনে এলো এক নতুন খবর। স্কালোনিকে কোচ হিসেবে পেতে চায় স্প্যানিশ জায়ান্ট ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ। সম্প্রতি এ প্রসঙ্গে আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যম মুন্দো আলবিসেলেস্তে ‘দবলে আমারিয়া’র বরাত দিয়ে জানিয়েছে, ‘কোচ হিসেবে পেতে এরই মধ্যে স্কালোনির সঙ্গে প্রাথমিক আলোচনা সেরে রেখেছে রিয়াল মাদ্রিদ।’

 

এদিকে আগে থেকেই শোনা যাচ্ছিল যে এই মৌসুম শেষেই রিয়াল মাদ্রিদের কোচের দায়িত্ব ছাড়তে যাচ্ছেন কার্লো আনচেলত্তি। নিশ্চিত না হলেও গুঞ্জন রয়েছে এই দায়িত্ব ছেড়ে ব্রাজিলিয়ান জাতীয় দলে কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে যাচ্ছেন ইতালিয়ান এই কোচ। আর তাই মৌসুম শেষে আনচেলত্তির পরিবর্তে স্কালোনিতে দেখা যেতে পারে রিয়ালের ডাগ আউটে।

 

এর আগে ২০১৮ বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা গ্রুপ পর্ব থেকে বাদ পড়ার পর কোচের দায়িত্ব নিয়েছিলেন স্কালোনি। এরপর যেন নতুন রূপে লিওনেল মেসি, এমিলিয়ানো মার্টিনেজ, আনহেল ডি মারিয়া, ডি পল, রোমেরোদের দেখেছে ফুটবল বিশ্ব। তার অধীনেই আর্জেন্টিনা তিনটি মেজর শিরোপা জিতেছে আর্জেন্টিনা। এর মধ্যে ২৮ বছর পর ২০২১ সালে ব্রাজিলকে হারিয়ে কোপা আমেরিকা জিতেছে আর্জেন্টিনা। তারপর ২০২২ ফিনালিসিমাতে ইতালিকে হারিয়ে জিতেছে আলবিসেলেস্তেরা। এরপর ঐ বছরই ২০২২ ফুটবল বিশ্বকাপ জিতে ৩৬ বছরের বিশ্বকাপ খরা ঘুচে যায় আর্জেন্টিনার।

ফেসবুকে ‘সাবধান’ করলেন মাহি!

আসন্ন দ্বাদশ নির্বাচন প্রসঙ্গে ফেসবুকে ‘সাবধান’ করলেন ঢালিউড চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। যারা আসন্ন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চান না মূলত তাদের ক্ষেত্রে এ সতর্কবার্তা দেন অভিনেত্রী।

 

সোমবার ( ২৭ নভেম্বর) এ প্রসঙ্গে ফেসবুকে ৭ মিনিট ৩২ সেকেন্ডের একটি ভিডিও আপলোড করেন মাহি। ভিডিওবার্তায় মাহি জানান, স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে আসন্ন নির্বাচনে ভোটের প্রতিযোগিতায় লড়বেন তিনি।

নির্বাচনে সবার অংশগ্রহণ কামনা করছেন অভিনেত্রী। তবে যারা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চেয়েও করছেন না এবং আসন্ন নির্বাচনে যারা নাশকতা সৃষ্টির ষড়যন্ত্র করছেন, তাদের সাবধান করে নায়িকা বলেন, মানুষকে ভয় দেখাবেন না। নির্বাচন সুষ্ঠু না হতে নাশকতা করার চেষ্টাও করবেন না।

এরপরই টিভি মিডিয়ার উদ্দেশে মাহি বলেন, `১২ বছর ধরে সিনেমায় কাজ করছি। আশা করি সব মিডিয়া আমার পাশে থাকবে। আমার নির্বাচনী এলাকায় নজর রাখবেন।’

অভিনেত্রীর বিশ্বাস, মানুষের জন্য কাজ করলে এবং যোগ্য প্রার্থী হলে অবশ্যই নির্বাচনে জয়ী হওয়া যায়। এ সময় মাহি বলেন, তার নির্বাচনী এলাকার জয় পেলে প্রতিটি মানুষের যোগ্য সম্মান নিশ্চিত করবেন তিনি। সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য তাই সবার উদ্দেশে সব দলের অংশগ্রহণের মাধ্যমে একটি উৎসবমুখর নির্বাচনের আহ্বান জানান চিত্রনায়িকা মাহি।

উল্লেখ্য, আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে ভোটে লড়বেন মাহি। রাজশাহী-১ (তানোর-গোদাগাড়ি) আসন থেকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটের লড়াইয়ে অংশ নেবেন জনপ্রিয় এ চিত্রনায়িকা।

সমমনাদের আসন ছাড় দেওয়া নিয়ে যা জানালেন ওবায়দুল কাদের

২৯৮ আসনে প্রার্থী মনোনয়ন দিয়েছে আওয়ামী লীগ। ১৪ দলীয় জোট ও সমমনাদের সঙ্গে আসনে সমঝোতা কিনা এ নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। এ বিষয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন, ১৪ দলে কারা কারা নমিনেশন চায় দেখে নিই, পরে সিদ্ধান্ত।

 

আওয়ামী লীগের সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে মঙ্গলবার সকালে এক বিফ্রিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

 

সমমনাদের ছাড় দেওয়ার বিষয়ে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ৩০০ আসনেই নৌকার প্রার্থী থাকবে। কোথাও প্রয়োজন হলে সেখানে সমন্বয় করে ছাড় দেওয়া হবে।

 

তিনি বলেন, ১৪ দলের সঙ্গে আমাদের জোট আছে। ১৪ দলে কারা কারা নমিনেশন চায়, আমাদের আগে বুঝতে হবে। আগামী ১৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত আমাদের হাতে সময় আছে। আমরা অবজারভ করব।

 

এসময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক ওয়াসিকা আয়শা খান, কার্যনির্বাহী সদস্য সাহাবুদ্দিন ফরাজী, আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

 

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনের মধ্যে দুটি আসনে নৌকা প্রতীকে প্রার্থী ঘোষণা করেনি আওয়ামী লীগ। এছাড়া বাকি ২৯৮ আসনে নৌকার প্রার্থী কে কে, তা জানিয়েছে দলটি।

 

এ প্রসঙ্গে সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন, এই দুই আসনের প্রার্থী পরে জানানো হবে। আসন দুটি হলো কুষ্টিয়া-২ ও নারায়ণগঞ্জ-৫। কুষ্টিয়া-২ আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের হাসানুল হক ইনু এবং নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে জাতীয় পার্টির সেলিম ওসমান।

বিএনপি ভাইস-চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টুর বাসায় বোমা হামলা

আবদুল আউয়াল মিন্টুর সাহেবের ছোট ভাই দাগনভূঞা উপজেলার বিএনপি’র সভাপতি আকবর হোসেনের ব্যবহারকৃত গাড়িতে সোমবার রাত দুবৃত্তরা আগুন লাগিয়ে জ্বালিয়ে দেয়। এ সময় ককটেল নিক্ষেপ করে আতঙ্ক সৃষ্টি করে। মিন্টু সাহেবের বাড়ির লোকজন আগুন নিভিয়ে ফেলে।

 

সোমবার (২৭ নভেম্বর) রাত দেড়টার দিকে তার বাসায় বোমা হামলার ঘটনা ঘটে। এছাড়াও বাড়ির অন্যান্য জায়গায় ক্ষতি হয়েছে।

 

তাৎক্ষনিক সংবাদ পেয়ে ওসি নিজাম উদ্দিন সেখানে যান। পরবর্তীতে ফেনী থেকে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন এসে আগুনের সূত্রপাত কিভাবে হয় খতিয়ে দেখেন এবং সাংবাদিকদের কে জানান।

 

উল্লেখ্য, গত শনিবার বিএনপি ডাকা অবরোধের সমর্থনে মশাল মিছিল করার সময় ছাত্রলীগ যুবলীক কর্মীরা ঘেরাও করে আকবর হোসেনকে পুলিশে সোপর্দ করে। পুলিশ নাশকতা মামলায় আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করেন।

বিএনপি দমনে সরকার, অভিযোগ নেতাদের

সরকার ও কয়েক বিচারক মিলে বিএনপি দমনে নেমেছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির আইনজীবী নেতারা। ঢালাও সাজা দেয়া থেকে বিরত রাখতে প্রধান বিচারপতির হস্তক্ষেপ চেয়েছেন তারা। সম্প্রতি সময় সংবাদকে এসব কথা বলেন বিএনপি নেতারা।

 

তবে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল অ্যাডভোকেট আবু মোহাম্মদ (এএম) আমিন উদ্দিন বলেছেন, সুর্নিদিষ্ট অভিযোগে মামলা ও সাক্ষ্যপ্রমাণের ভিত্তিতেই সাজা হচ্ছে নাশকতাকারীদের।

 

বিএনপির হিসেবে, গত দেড় মাসে ৫৮২ জন নেতাকর্মীকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দিয়েছেন দেশের আদালত। যদিও ২০১৩ ও ২০১৮ সালের নাশকতার মামলায় দণ্ড হওয়া অধিকাংশ নেতাকর্মী পলাতক রয়েছেন।

তথ্য বিশ্লেষণ করে দলটির আইনজীবী নেতারা বলছেন, দণ্ডিত হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে সক্রিয় ও সম্ভাব্য প্রার্থীর সংখ্যাই বেশি। শুধু তাই নয় এক ডজন শীর্ষ নেতাদের মামলার বিচার রয়েছে শেষ পর্যায়ে রয়েছে। এরমধ্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের দুর্নীতির মামলার রায়ের দিন ধার্য রয়েছে আগামী বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর)।

দলটির আইনজীবীদের দাবি, পর্যাপ্ত সাক্ষ্যপ্রমাণ ছাড়াই রাজনীতি ও নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে তড়িঘড়ি করে মামলা নিষ্পত্তি করছেন বিচারকরা।

কিছু কিছু আদালত হয়ত আইনমন্ত্রণালয়ের অনেক চাপে আছেন। অথবা তাদের দায়বদ্ধতা থেকে বিএনপি নেতাকর্মীদেরকে আইনের যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ না করে সাজা দিচ্ছেন নির্বাচারে।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন,

বিচার বিভাগ সম্বন্ধে জনগণের মধ্যে ভিন্ন একটা ইঙ্গিত যাচ্ছে। এটা নিয়ন্ত্রণ করা উচিত, নিম্ন আদালতে যা হচ্ছে।

নির্বাচনের আগে বিরোধী নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের সমালোচনা করেছেন আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ।

বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আইন কর্মকর্তা বলেন, নাশকতার সুর্নিদিষ্ট অভিযোগে মামলা ও সাক্ষ্যপ্রমাণের ভিত্তিতেই সাজা হচ্ছে বিএনপি নেতাকর্মীদের।

অ্যাটর্নি জেনারেল আমিন উদ্দিন আরও বলেন,

বিরোধীদের ডাকা হরতাল-অবরোধে মানুষের গাড়ি পুড়ছে, জানমালের ক্ষতি হচ্ছে-যারা এগুলো করছে, তাদের যদি পুলিশ গ্রেফতার করে তো, করবেই। সাক্ষ্য প্রমাণ ছাড়া আমাদের দেশে, প্রচলিত আইনের ব্যবস্থায় কোনোভাবেই কোনো বিচার করা সম্ভব না। মামলা ও সাক্ষ্যপ্রমাণের ভিত্তিতেই সাজা হচ্ছে।

এইচআরডব্লিউ রিপোর্ট বাস্তবতা বিবর্জিত বলেও দাবি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল।

জিৎতের সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা নিয়ে মুখ খুললেন মীম

ভারতের ৭০০ সিনেমা হলে বাংলা ও হিন্দি ভাষায় মুক্তি পেয়েছে ‘মানুষ’। এটা সত্যি আমার জন্য অনেক খুশির খবর। তাছাড়া সিনেমাটি মুক্তির পর দর্শকদের দারুণ সাড়া পাচ্ছি। এমন সাফল্য ‘মানুষ’ টিমকে গর্বিত করছে। আশা করছি, পুরো সপ্তাহদুড়েই দর্শকরা সিনেমাটি দেখে মুগ্ধ হবে। একজন শিল্পী হিসেবে এটাই আমার তৃপ্তির জায়গা।’—নিজের নতুন সিনেমার দর্শক প্রতিক্রিয়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে জনপ্রিয় অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মীম এসব কথা বলেন।

 

সম্প্রতি ভারতে মুক্তি পেয়েছে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র পরিচালক সঞ্জয় সমাদ্দার পরিচালিত সিনেমা ‘মানুষ’। এতে প্রধান চরিত্রে আছেন ওপার বাংলার সুপারস্টার জিৎ। সিনেমাটিতে পুলিশ অফিসারের চরিত্রে অনবদ্য অভিনয় করেছেন। এরইমধ্যে সিনেমাটি দর্শকের মধ্যে বেশ সাড়া ফেলেছে। শুধু তাই নয়, সিনেমাটিতে মন্দিরা চরিত্রে মীমের দুর্দান্ত অভিনয়ও দর্শককে মুগ্ধ করেছে।

 

যারা সিনেমাটি দেখছেন মীমের অভিনয়ের প্রশংসা করছেন। এছাড়া সিনেমাটিতে জিতের অভিনয় নিয়েও নতুন করে আলোচনা শুরু হয়েছে। যদিও ‘মানুষ’ মুক্তির সময় কলকাতায় যেতে পারেননি মীম। তবু কলকাতায় তার ভক্ত-দর্শকের কাছ থেকে তিনি বেশ ভালো সাড়া পেয়ে আপ্লুত।

 

এই সিনেমাটির মাধ্যমে আবারও জিৎয়ের সঙ্গে মীমকে পর্দা শেয়ার করতে দেখছেন সিনেপ্রেমীরা। পাশাপাশি ওপার বাংলায় সিনেমায় বাংলাদেশির নির্মাতার সঙ্গে এবারই প্রথম কাজ করেছেন তিনি।

মীম বলেন, সঞ্জয় সমাদ্দার দাদা বাংলাদেশে অনেক ভালো ভালো গল্পের নাটক নির্মাণ করে বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছেন। তিনি নির্মাণে মেধার স্বাক্ষর রেখে অ্যাওয়ার্ডও পেয়েছেন। তার নির্মিত ‘মানুষ’ সিনেমাটিতে কাজ করে আমি আনন্দিত। আর জিৎ দা সম্পর্কে নতুন করে কিছু বলার নেই। ওনার সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা বরাবরই ভালো আমার। দারুণ সহযোগিতা পরায়ণ মানুষ তিনি। কাজের সময় বোঝাই যায় না যে, উনি সুপারস্টার।’

 

এদিকে মানুষ সিনেমার সাফল্যের মাঝেই নিজের নতুন সিনেমা ‘দিগন্তে ফুলের আগুন’ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন মীম। ২০১৮-১৯ সালের সরকারি অনুদান পাওয়া এ সিনেমাটি নির্মাণ করছেন ওয়াহিদ তারেক। এতে মীম শহীদুল্লাহ কায়সারের স্ত্রী পান্না কায়সার, অর্থাৎ জনপ্রিয় অভিনেত্রী শমী কায়সারের মায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

 

আগামী বছরের শুরুতে সিনেমাটি মুক্তি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া দেশের সিনেমায় গত বছর আশার আলো দেখায় মীম অভিনীত রায়হান রাফি পরিচালিত ‘পরাণ’ সিনেমাটি। সব মিলিয়ে দারুণ সময় যাচ্ছে এই অভিনেত্রীর-এ কথা বলার অবকাশ রাখে না।

মাধ্যমিক স্কুলে ভর্তির লটারি আজ, দেখা যাবে ফেসবুক লাইভে

দেশের মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলোতে প্রথম থেকে নবম শ্রেণিতে ভর্তির জন্য শিক্ষার্থী বাছাই করতে ডিজিটাল লটারি অনুষ্ঠিত হচ্ছে আজ। রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে কেন্দ্রীয় ব্যবস্থাপনায় এই লটারি অনুষ্ঠিত হবে।

 

মঙ্গলবার সকাল ১১টায় অনুষ্ঠানটি মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) ফেসবুক পেজ এবং টেলিভিশন চ্যানেল সরাসরি সম্প্রচার হবে।

 

মাউশি এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, এতে প্রধান অতিথি থাকবেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। অনুষ্ঠানে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব সোলেমান খান বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন।

 

মাউশি সূত্রে জানা গেছে, রোববার (২৬ নভেম্বর) লটারির জন্য নির্ধারিত ছিল। কিন্তু ওই দিন এইচএসসি ও সমমানের ফলাফল প্রকাশিত হবে। এ জন্য লটারির তারিখ পেছানো হয়েছে।

 

মাউশি জানায়, ভর্তির জন্য আবেদন নেওয়া শুরু হয়েছিল ২৪ অক্টোবর। প্রথমে ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত সময় থাকলেও পরে তা বাড়িয়ে ১৮ নভেম্বর করা হয়। এবার কেন্দ্রিয় লটারির অধীনে আসা দেশের সরকারি-বেসরকারি ৩ হাজার ৮৪৬টি বিদ্যালয়ে আসন আছে ১১ লাখ ২২ হাজার ৯৪টি। তবে আবেদন পড়েছে ৮ লাখ ৭৩ হাজার ৭৯২টি। এর মধ্যে ৬৫৮টি সরকারি বিদ্যালয়ে আছে ১ লাখ ১৮ হাজার ১০১ আসন।

 

আবেদন পড়েছে ৫ লাখ ৬৩ হাজার ১৩টি। অন্যদিকে ৩ হাজার ১৮৮টি বেসরকারি বিদ্যালয়ের ১০ লাখ ৩ হাজার ৯৯৩টি আসনের বিপরীতে আবেদন পড়েছে ৩ লাখ ১০ হাজার ৭৭৯ টি। অর্থাৎ বেসরকারি বিদ্যালয়ে আবেদনকারী সবাই ভর্তি হলেও প্রায় সাত লাখ আসন খালি থাকবে।

 

প্রতিবারই বছরের শেষ সময়ে এসে পরবর্তী বছরের ভর্তির প্রক্রিয়া চলে। ভর্তি শেষে জানুয়ারিতে ক্লাস শুরু হয়। আগে কেবল প্রথম শ্রেণিতে ভর্তির কাজটি হতো লটারির মাধ্যমে। কিন্তু করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে ২০২১ শিক্ষাবর্ষে বিদ্যালয়গুলোয় সব শ্রেণিতেই লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়। এর পর থেকে একই প্রক্রিয়ায় ভর্তির জন্য শিক্ষার্থী বাছাই করা হচ্ছে।

নৌকায় ওঠা হলো না যেসব বিনোদন তারকার

নৌকার টিকিট নিয়ে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের লক্ষ্যে অনেক তারকা আওয়ামী লীগের মনোনয়ন সংগ্রহ করেছিলেন। সেই তালিকা থেকে ঝরে পড়ছেন অধিকাংশ অভিনেতা-অভিনেত্রীই। মনোনয়ন ফরম কিনেও চূড়ান্ত তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন তারা।

 

রোববার বিকালে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের মনোনয়নের তালিকা ঘোষণা করেন।

 

যেখানে পুরাতনদের মধ্যে রয়েছেন অভিনেতা আসাদুজ্জামান নূর ও সংগীতশিল্পী মমতাজ। আর নতুন তারকাদের মধ্যে যুক্ত হয়েছেন অভিনেতা ফেরদৌস আহমেদ। তা ছাড়া আর কেউ মনোনয়ন পাননি।

 

মনোনয়নবঞ্চিত শিল্পীরা হলেন— মাসুম পারভেজ রুবেল (বরিশাল-৩), শাকিল খান (বাগেরহাট-৩), মাহিয়া মাহি (চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২), সিদ্দিকুর রহমান (টাঙ্গাইল-১ ও ঢাকা-১৭), কণ্ঠশিল্পী এসডি রুবেল (ঢাকা-৮), শামসুন্নাহার সিমলা (ঝিনাইদহ-১), অভিনেত্রী রোকেয়া প্রাচী (ফেনী-৩) ও শমী কায়সার (ফেনী-৩)। এসব আসনে অন্যদের মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হয়।

মাসুম পারভেজ রুবেলের জায়গায় মনোনয়ন পেয়েছেন সরদার মো. খালেদ হোসেন। শাকিল খানের বিপরীতে মনোনয়ন পেয়েছেন হাবিবুন নাহার। মাহিয়া মাহির জায়গায় মনোনয়ন পেয়েছেন এ আসনের বর্তমান এমপি জিয়াউর রহমান। সিদ্দিকুর রহমানের দুটি আসনের জায়গায় দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন মো. আবদুর রাজ্জাক ও মোহাম্মদ আলী আরাফাত।

 

এসডি রুবেলের পরিবর্তে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম। শামসুন্নাহার সিমলার জায়গায় মনোনয়ন পেয়েছেন মো. আব্দুল হাই। রোকেয়া প্রাচী ও শমী কায়সারের পরিবর্তে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন মো. আবুল বাশার।

পাঠক প্রিয়