Fri, February 3, 2023
রেজি নং- আবেদিত

বাস্তুতে মিলায় আয়ু

বাস্তু শব্দের অর্থ বসবাস৷আসলে যে ভূমিতে আমরা বসবাস করি, তাকেই সাধারণভাবে বাস্তু বলে৷টাকাপয়সা, কেরিয়ারে উন্নতি, সন্তান ভাগ্যের সঙ্গে সঙ্গে শরীরকে নীরোগ রাখতেও বাস্তুর গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রয়েছে৷সবার ক্ষেত্রে পুরোটা মেনে চলা সম্ভব না হলেও বাড়ি করা বা ফ্ল্যাট কেনার সময় টিপসগুলো মাথায় রাখতে পারলে ভালো৷

১) বাড়িতে কুয়ো, টিউবওয়েল, ট্যাঙ্কি, বেসিন পূর্ব, পশ্চিম, উত্তর বা ঈশান কোণেই শুধুমাত্র রাখা উচিত৷প্রধান জলের ট্যাঙ্ক রাখা উচিত ঈশান কোণে৷

২) দক্ষিণ বা নৈঋত কোণে কুয়ো বা ট্যাঙ্কি থাকলে রোগ-ভোগ বাড়ে৷ এমনকী আয়ু কমে যাওয়াও আশ্চর্যের নয়৷

৩) একটা ঘর উত্তরে আর একটা ঘর যদি বাড়ির পশ্চিম প্রান্তে হয়, তাহলে গৃহস্বামীর জীবনে ছেয়ে রয়েছে মৃত্যুর ঘনঘটা৷এরকমভাবেই একটা ঘর পূর্বদিকে আর একটা ঘর দক্ষিণে থাকলে পরিবারের লোকজনের বাতের সম্ভাবনা বাড়ে৷উত্তর, দক্ষিণ, পূর্ব এই তিনদিকে ঘর রয়েছে, কিন্তু ফাঁকা পড়ে রয়েছে দক্ষিণ দিক, তাহলে কিছুদিন ছাড়া ছাড়াই নানারকম রোগে জেরবার হবেন আপনি৷

৪) বাথরুম পূর্বে, রান্নাঘর আগ্নেয় কোণে, শোওয়ার ঘর দক্ষিণে, পরিবারের প্রধান বা গৃহস্বামীর ঘর দক্ষিণে বা দক্ষিণ-নৈঋত কোণে, খাওয়ার ঘর পশ্চিমে, পুজোর ঘর উত্তর বা ঈশান কোণে হওয়াই বাঞ্ছনীয়৷ঘরের যাবতীয় ভারী জিনিসপত্র নৈঋত দিশাতে রাখা উচিত৷

৫) স্বামী-স্ত্রী যদি ঈশান কোণে মাথা রেখে শোন, তাহলে রোগ হওয়া অবশ্যম্ভাবী৷সবসময় পূর্ব বা দক্ষিণ দিকেই মাথা রেখে শোওয়া উচিত৷উত্তর বা পশ্চিমে মাথা রেখে শুলে আয়ুক্ষয়ের সম্ভাবনা থাকে৷

৬) দুপুরবেলা যদি কোনও গাছ বা মন্দিরের ছায়া বাড়িতে পরে তা শরীরের পক্ষে খুব একটা মঙ্গলদায়ক নয়৷

৭) একই দেওয়ালে গায়ে লাগানো দুটো বাড়ি থাকলে গৃহস্বামীর আয়ু দ্রুত ক্ষয়ে যায়৷

৮) কোনও রাস্তা বা গলির শেষ বাড়িটি আপনার হলে সারাজীবন রোগ নিয়ে আপনাকে ভুগতে হবে৷

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

এই সম্পর্কীত আরো সংবাদ পড়ুন

পাতালরেলের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

পাতালরেলের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (২ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ

বিস্তারিত »