Wed, November 30, 2022
রেজি নং- আবেদিত

দর্শনার্থীদের আকৃষ্ট করছে চট্টগ্রামের বাঁশবাড়িয়া সমুদ্র সৈকত

আরফিন আরিফ, চট্টগ্রাম:

প্রাকৃতিক সৌন্ধর্য্যে ঘেরা চট্টগ্রামের নতুন সংযোজন সিতাকুন্ডের বাাঁশবাড়িয়া বীচ। সমুদ্র ঢেউ এর সাথে ঝাউ বাগানের সবুজ প্রকৃতি নিয়ে এক নির্মল পরিবেশ ভ্রমণ পিপাসু এবং প্রকৃতি প্রেমীদের খুব সহজেই আকৃষ্ট করছে। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে তরুণ তরুণী ছাড়াও মধ্যবয়স্করাও ভিড় করছে এখানে। বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং সংগঠনের পছন্দের পিকনিক স্পট হিসেবে পরিচিতি পাচ্ছে এই বীচটি। বিশেষ করে শুক্রবার সহ অন্যান্য ছুটির দিনে এখানে দর্শনার্থীদের সমাগম চোখে পড়ার মত। এই স্থানটি মূলত সন্দ্বিপের নৌ-ঘাট হিসাবে এলাকাবাসীর কাছে পরিচিত ছিলো। এখানে বসানো হয়েছে দীর্ঘ এক কিলোমিটারের লোহার সাাঁকো। যা মূলত দর্শকদের আকৃষ্ট করে। তবে এ বীচের আসল সৌন্ধর্যটি রয়েছে ঘাটের উত্তরপার্শে অবস্থিত সমুদ্রতীরের ঝাউ বনটি। ঝাউ বনের সাথে মিশে অছে ঢেউয়ের আঘাতে ভেঙে পড়া মাটির খন্ড। যেগুলো দেখতে অনেকটা ছোট বড় সবুজ পাহাড়ের মত মনে হয়। জোয়ারের পানিতে যখন ভরে যায় কিনারা তখন মনে হয় যেন পাহাড়ের পাদ-দেশে হ্রদ বয়ে গেছে। চোখে পড়ে তখন সাদা ধুসর রংয়ের বক সহ নানান পাখি। বাাঁশবাড়িয়া বীচে এসে যদি আপনি উত্তরের এ সুদৃশ্য ঝাউ বনটি উপভোগ না করেন তবে আপনার ভ্রমণটি বৃথা হতে পারে। ঝাউ বনটি কিছুটা নির্জন হওয়াতে একা-একি যাওয়া কিংবা প্রেমিক যুগলদের জন্য বিপজ্জনক হতে পারে।
বীচটিতে যেতে চাইলে আপনাকে চট্টগ্রাম সিটি গেট থেকে হাইওয়ে ধরে ১৫ কিলোমিটার উত্তরে বাঁশবাড়িয়া বাজারে পৌছাতে হবে। বাজার থেকে এক কিলোমিটার পশ্চিমে গুলিয়াখালি নামক স্থানে বীচটি অবস্থিত।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

এই সম্পর্কীত আরো সংবাদ পড়ুন

আমাদের ব্যাটসম্যানদের বড় রান করতে হবে : সিয়াম

আগের ম্যাচেই ১৫ বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে বিশ্বকাপের মূল পর্বে ম্যাচ জিতেছে বাংলাদেশ। নেদারল্যান্ডকে হারানোর

বিস্তারিত »

ভারতে সাজাভোগ : অবশেষে দেশে ফিরলেন ৬ তরুণী

ভালো কাজের প্রলোভনে পড়ে সীমান্তের অবৈধপথে দালালের মাধ্যমে ভারতে পাচারের শিকার ছয় বাংলাদেশি তরুণীকে ট্রাভেল

বিস্তারিত »

ডেঙ্গু : ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ১০৩৪ জন হাসপাতালে

দেশে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তির আগের রেকর্ড ভেঙে প্রায় প্রতিদিন

বিস্তারিত »