Wed, November 30, 2022
রেজি নং- আবেদিত

বিক্ষোভে উত্তাল ইরান, পুলিশের গুলিতে নিহত ৫

হিজাব না পরায় ইরানের নৈতিকতা পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার ও নির্যাতনে এক তরুণীর মৃত্যু ঘিরে সাধারণ জনগণের ব্যাপক বিক্ষোভ-প্রতিবাদে গুলি চালিয়েছে দেশটির আইনশৃঙ্খলাবাহিনী। সোমবার ইরানের কুর্দিস্তান প্রদেশে জনগণের বিক্ষোভে পুলিশের গুলিতে অন্তত পাঁচজন নিহত হয়েছেন।

গত সপ্তাহে পুলিশি জিম্মায় ২২ বছর বয়সী মাশা আমিনি নামের ওই তরুণীর মৃত্যুর পর ইরানজুড়ে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখা দিয়েছে। এ নিয়ে টানা তৃতীয় দিনের মতো দেশজুড়ে বিক্ষোভ করেছেন দেশটির হাজার হাজার মানুষ।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, হিজাব না পরার কারণে গত সপ্তাহে ইরানের নৈতিকতা পুলিশ মাশা আমিনিকে গ্রেপ্তার করে। কুর্দিস্তান প্রদেশে নৈতিকতা পুলিশের জিম্মায় থাকাকালীন অসুস্থ হয়ে কোমায় যাওয়া ওই তরুণীর মৃত্যুর পর রাজধানী তেহরানসহ দেশটির বিভিন্ন প্রদেশে রাস্তায় নেমে লোকজন বিক্ষোভ করেছেন।

দেশটির স্থানীয় মানবাধিকার সংস্থা হেঙ্গাও মানবাধিকার টুইটারে এক বার্তায় বলেছে, আমিনির নিজ শহর সাকেজে বিক্ষোভকারীদের ওপর নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে দু’জন নিহত হয়েছেন।

এতে বলা হয়েছে, নিরাপত্তা বাহিনীর কাছ থেকে ছোড়া গুলিতে দিভান্ডারেহ শহরে আরও দু’জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া দেহগোলান শহরে পঞ্চম একজনের প্রাণহানি ঘটেছে।

তবে পুলিশের গুলিতে বিক্ষোভকারীদের প্রাণহানির তথ্য নিরপেক্ষভাবে যাচাই করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছে রয়টার্স। এছাড়া সরকারের পক্ষ থেকেও বিক্ষোভকারীদের প্রাণহানির ব্যাপারে কোনও তথ্য নিশ্চিত করা হয়নি।

ইরানের রাষ্ট্রায়ত্ত বার্তা সংস্থা আইআরএনএ বলেছে, ইরানের সাতটি প্রদেশের বেশ কয়েকটি শহরে ‘সীমিত’ পরিসরে বিক্ষোভ হয়েছে। তবে পুলিশ অভিযান চালিয়ে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছে।

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের খবরে বলা হয়েছে, দেশজুড়ে চলমান বিক্ষোভ থেকে কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিক্ষোভে আহত দুই যুবককে দেখিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তোলা মৃত্যুর অভিযোগও অস্বীকার করা হয়েছে।

আমিনির মৃত্যুর পর দেশজুড়ে চলমান বিক্ষোভে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে ফার্সি হ্যাশ ট্যাগ মাশাআমিনি (#MahsaAmini) ট্রেন্ডে পরিণত হয়েছে। এই হ্যাশ ট্যাগ ব্যবহার করে এখন পর্যন্ত প্রায় ২০ লাখ টুইট করেছেন দেশটির বিক্ষোভকারীরা।

ইরানের স্থানীয় একাধিক সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে এএফপি বলছে, পড়াশোনা সূত্রে ইরানের কুর্দিস্তান প্রদেশে থাকতেন মাশা আমিনি। গত সপ্তাহে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করতে রাজধানী তেহরান এসেছিলেন।

হিজাব ও বোরকা না পরে বাড়ির বাইরে বের হওয়ায় বৃহস্পতিবার মাশা আমিনিকে গ্রেপ্তার করে থানা হেফাজতে নিয়ে যায় ইরানের নৈতিকতা পুলিশ। হেফাজতে নিয়ে যাওয়ার দু’ঘণ্টা পরই গুরুতর আহত অবস্থায় অ্যাম্বুলেন্সে করে হাসপাতালে নেওয়া হয় তাকে।

হাসপাতালের একটি সূত্র জানিয়েছে, গুরুতর শারীরিক নির্যাতনের জেরেই মৃত্যু হয়েছে মাশার। সূত্র: রয়টার্স।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

এই সম্পর্কীত আরো সংবাদ পড়ুন

আমাদের ব্যাটসম্যানদের বড় রান করতে হবে : সিয়াম

আগের ম্যাচেই ১৫ বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে বিশ্বকাপের মূল পর্বে ম্যাচ জিতেছে বাংলাদেশ। নেদারল্যান্ডকে হারানোর

বিস্তারিত »

ভারতে সাজাভোগ : অবশেষে দেশে ফিরলেন ৬ তরুণী

ভালো কাজের প্রলোভনে পড়ে সীমান্তের অবৈধপথে দালালের মাধ্যমে ভারতে পাচারের শিকার ছয় বাংলাদেশি তরুণীকে ট্রাভেল

বিস্তারিত »

ডেঙ্গু : ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ১০৩৪ জন হাসপাতালে

দেশে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তির আগের রেকর্ড ভেঙে প্রায় প্রতিদিন

বিস্তারিত »