Sat, January 28, 2023
রেজি নং- আবেদিত

স্কিনি জিনসেই অসুস্থ মহিলা

অন্য কোনও অসুস্থতা নয় বরং স্রেফ ‘স্কিনি জিনস’ বা শরীরে শক্তভাবে লেপ্টে থাকা জিনস পরে কাজ করতে গিয়েই চার দিন হাসপাতালে থাকতে হল এক মহিলাকে। চিকিৎসকেরা তাঁকে বলছেন ফ্যাশন ভিকটিম বা ফ্যাশনের শিকার। এ ঘটনার পর চিকিৎসকেরা হুঁশিয়ার করেছেন আঁটসাঁট পোশাক পরার কারণে স্নায়ুতে চাপ পড়ার ঝুঁকি নিয়ে।
অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডিলেডে ৩৫ বছরের এক মহিলা স্কিনি জিনস পরে সারা দিন ধরে কাজ করেন এক আত্মীয়ের বাড়িতে। কিন্তু দুপুর গড়িয়ে বিকেল হতে থাকলে ক্রমশ দুর্বল হয়ে পড়ে তার শরীর। বাড়ি ফেরার পথে তিনি আর হাঁটতে পারছিলেন না। এক সময় পা নাড়াতেও অক্ষম হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। পায়ের আঙুল বা গোড়ালি কিছুই নাড়াতে পারছিলেন না তিনি এবং তাঁর হাঁটুর নিচ থেকে পা পর্যন্ত পুরো অংশই অবশ হয়ে গিয়েছিল। কয়েক ঘণ্টা রাস্তায় নিচেই পড়েছিলেন ওই মহিলা। পরে তাকে রয়্যাল অ্যাডিলেড হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চার দিন চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।
চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, ‘ওই মহিলার জিনস এতটাই আঁটসাঁট আর এতটাই শক্তভাবে তা শরীরে লেপ্টে গিয়েছিল যে, না কেটে তা পা থেকে খোলার উপায় ছিল না।’ পায়ের পেশি শিথিল করা এবং স্নায়ু সচল করার জন্য চার দিনের চিকিৎসার পর ওই মহিলা হাঁটার ক্ষমতা ফিরে পান।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

এই সম্পর্কীত আরো সংবাদ পড়ুন

মসজিদুল হারাম ও মসজিদে নববীতে প্রশাসনিক উচ্চপদে নারীদের নিয়োগের সিদ্ধান্ত

সৌদি আরবের পবিত্র নগরী মক্কার মসজিদুল হারাম ও মদীনার মসজিদে নববীতে প্রশাসনিক উচ্চপদে নারীদের নিয়োগের

বিস্তারিত »