Sat, January 28, 2023
রেজি নং- আবেদিত

সৌন্দর্যে অনন্য দ্বীপরাষ্ট্র “পালাউ”

ওশেনিয়া মহাদেশের ছোট একটি দ্বীপরাষ্ট্র পালাউ। এর রাষ্ট্রীয় নাম রিপাবলিক অব পালাউ বা পালাউ প্রজাতন্ত্র। পুরো দ্বীপরাষ্ট্রটি প্রায় ২৫০টি ছোট বড় দ্বীপ নিয়ে গঠিত। পালাউ প্রজাতন্ত্রের রাজধানী মেলিকিওক। ৪৫৮ বর্গকিলোমিটার আয়তনের ছোট এই দেশটির জনসংখ্যা প্রায় ২১,০০০ । তাদের বসবাস দেশটির বিভিন্ন দ্বীপে। পালাউয়ের রাষ্ট্রীয় ভাষা পালাউ এবং ইংরেজি। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পট পরিবর্তনের পর পালাউ প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপপুঞ্জের জাতিসংঘ ট্রাস্ট এলাকার অন্তর্ভুক্ত হয়। তখন থেকেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এটি শাসন করতো। ১৯৯৪ সালের ১ অক্টোবর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে এক চুক্তির মাধ্যমে পালাউ স্বাধীনতা লাভ করে। সেই থেকে ১ অক্টোবর ক্যা পালাউ সরকার স্বাধীনতা দিবস হিসেবে পালন করে আসছে। পালাউয়ের আবহাওয়া নাতিশীতোষ্ণ। এখানকার গড় তাপমাত্রা ২৮° সেলসিয়াস। এছাড়া এখানে সারাবছর প্রচুর বৃষ্টিপাত হয়। গড়ে প্রতি বছর এখানে ৩,৮০০ মিমি বৃষ্টিপাত হয়। সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয় জুলাই থেকে অক্টোবর মাসে।


পালাউয়ের জনপ্রিয় খেলা
পালাউয়ের জনপ্রিয় খেলা হল বেসবল। পালাউয়ের জনগণ এই খেলার সাথে পরিচিত হয় জাপানিজদের মাধ্যমে ১৯২০ সালে। তারপর থেকে এই খেলাকে পালাউয়ের জনগণ আপন করে নিয়েছে। পালাউ ন্যাশনাল বেসবল টিম মাইক্রোনেশিয়ান গেমসে তিনবার স্বর্ণপদক লাভ করে। সর্বশেষ ২০১০ সালে তারা মাইক্রোনেশিয়ান গেমসে স্বর্ণপদক লাভ করেছে। এছাড়াও পালাউয়ের জনগণ ফুটবল খেলা পছন্দ করে। কিন্তু এটা এখনো এতটা জনপ্রিয় হয়ে উঠতে পারেনি।

পালাউয়ের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য
পালাউতে আসার সময় বিমান থেকেই পালাউয়ের অনেকটা সৌন্দর্য উপভোগ করা যায়। সাদা মেঘের ভেলার নীচে সচ্ছ নীল জলরশি আপনাকে মুগ্ধ করবে। পালাউয়ের অন্যতম আকর্ষণ এর প্রাকৃতিক সৌন্দর্য। পুরো দ্বীপরাষ্ট্রটিকে বেষ্টিত করে রেখেছে স্বচ্ছ নীল জলরাশি। ইচ্ছে করলে আপনি ডুবরীর পোশাক পরে নেমে যেতে পারেন সাগরের তলদেশ ভ্রমণে। সেখানে দেখা মিলবে হাজারো প্রজাতির সুন্দর সুন্দর প্রাণীর। এমন অভিজ্ঞতা অর্জনের সুযোগ বারবার আসেনা। এছাড়াও কোয়াক নিয়ে বেড়িয়ে পড়তে পারেন কোন এক সকালে। সারাদিন কোয়াক নিয়ে সাগরে ভ্রমণ পর্যটকদের অবশ্যই ভাল লাগবে। এইসব প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের টানে প্রতিবছর বিশ্বের বিভিন্ন স্থান থেকে হাজারো পর্যটক এখানে ছুটে আসেন।


আরও যা যা দেখবেন
অবশ্যই পালাউ মিউজিয়াম এবং পালাউ আয়কুরিয়াম দেখতে ভুলবেন না। কেনাকাটা করার জন্য এখানে স্থানীয়দের হাতে তৈরি অনেক জিনিস পাওয়া যায়। কোন জিনিস পছন্দ হলে কিনে ফেলতে পারেন।

কোথায় থাকবেন
পালাউয়ে থাকার মত অনেক হোটেল, মোটেল এবং বাংলো পাওয়া যায়। সাধারণ মানের হোটেল থেকে শুরু করে বিলাসবহুল রিসোর্ট সবই এখানে পাওয়া যায়। পালাউয়ে বেড়াতে আসা অধিকাংশ পর্যটক ‘করোর’ শহরে থাকতে পছন্দ করে। পালাউয়ের উল্লেখযোগ্য রিসোর্টগুলো হল পালাউ প্যাসিফিক রিসোর্ট, পালাসিয়া হোটেল পালাউ, পালাউ রয়েল রিসোর্ট। এছাড়া একটু কম খরচের মধ্যে ব্লু ওসিন হোটেল, গ্রিন বে হোটেল, পালাউ হোটেল, ওয়েস্ট প্লাজা কোরাল রীফ হোটেল, রোজ গার্ডেন রিসোর্ট এ থাকতে পারেন।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

এই সম্পর্কীত আরো সংবাদ পড়ুন

মসজিদুল হারাম ও মসজিদে নববীতে প্রশাসনিক উচ্চপদে নারীদের নিয়োগের সিদ্ধান্ত

সৌদি আরবের পবিত্র নগরী মক্কার মসজিদুল হারাম ও মদীনার মসজিদে নববীতে প্রশাসনিক উচ্চপদে নারীদের নিয়োগের

বিস্তারিত »